Published On: Wed, Jan 11th, 2017

‘যে দুই হাতে ওদের খাইয়েছি, আজ সেই হাত দিয়েই মারলাম’

রাজধানীর দারুসসালাম এলাকায় দুই সন্তানসহ মায়ের লাশ উদ্ধারের সময় একটি চিরকূটও উদ্ধার করেছে পুলিশ। এক পৃষ্ঠার ওই চিরকূটে নিহত আনিকা আক্তারের (২৫) স্বামী শামীমকে উদ্দেশ্য করে লেখা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

 

চিঠির এক জায়গায় মাকে উদ্দেশ করে লেখা, ‘মা আমি এই দুই হাত দিয়ে ওদের খাওয়াছি (খাইয়েছি), তেল দিছি (মাখিয়েছি), আর আজ সেই হাত দিয়ে (ওদের) মারলাম।’

দারুসসালাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুকুল আলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘দুপুরে খবর পেয়ে আমরা দরজা ভেঙ্গে নিহত আনিকা ও তার দুই সন্তান শামীমা ও আব্দুল্লাহর লাশ উদ্ধার করি। এ সময় আব্দুল্লাহ ট্রাউজারের ভেতরে আমরা একটি চিরকূটি পাই। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, চিরকূটটি আনিকারই লেখা। তবে নিশ্চিত হওয়ার


জন্য আমরা তার স্বজনদের সহযোগিতা নেবো। তা না হলে বিশেষজ্ঞদের সহযোগিতা নেবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই ঘটনায় এখনও কোনও মামলা হয়নি। তবে নিহতের স্বজনরা কোনও মামলা দিতে চাইলে মামলা দায়ের করা হবে।’

 

চিরকূটের লেখাটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘শামীম তোমার একটা ভুলের জন্য এত বড় ঘটনা। তুমি ভেবেছো আমি সুধু শুনব না। তুমি সবার কথা ভাবো, আমাদের কথা ভাবো। আমি সবাইকে ছেড়ে যাছি (যাচ্ছি)। থাকবো না, পৃথিবী ছেড়ে আর বলেছিলাম না। আমি যেখানে, ওরা সেখানে। একটাই কষ্ট মা ভাই বোন নানী আরও অনেকের মুখ দেখতে পালামনা (পেলাম না)। ছেলে মেয়ে নেয়ে (নিয়ে) গেলাম সবাই ভালো থেকো।’

‘মা আমি এই দুই হাত দিয়ে ওদের খাওয়াছি, তেল দিছি (দিয়েছি), আর আজ সেই হাত দিয়ে মারলাম। আমাকে তোমরা মাপ (মাফ) করে দেও (দাও)। আমাদের কপলে (কপালে) এ ছিল। ওরা দুজন নিশ্বাপ (নিষ্পাপ)। আমাদের মৃতর (মৃত্যুর) জন্য কেও (কেউ) দাই (দায়ী) না।’

ইতি

আনিকা

শামীমা

আব্দুল্লাহ

 

জানা গেছে, নিহত আনিকার স্বামীর নাম মো. শামীম। তার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর। এদিকে আনিকার গ্রামের বাড়ি নওগাঁতে। তার স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসলে ময়নাতদন্তের পর লাশ হস্তান্তর করা হবে।

Must Like and Share 🙂

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর দারুসসালাম থানার ছোট দিয়াবাড়ির ২৯/১ নম্বর টিনসেড বাড়ির একটি কক্ষ থেকে মা আনিকা ও তার দুই সন্তান শামীমা ও আব্দুল্লাহর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তাদের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>